আইফেল টাওয়ার প্রতি বছর ১৫ সে.মি বৃদ্ধি পায় কেন ?

অন্বেষা.নেট - শিক্ষা বিষয়ক বাংলা ব্লগ । অদ্ভুত কোন বিষয়ের অবতারণা করা আমাদের মূল উদ্দেশ্য নয় । তবে "আইফেল টাওয়ার প্রতি বছর ১৫ সে.মি বৃদ্ধি পায় কেন?" আমাদের  এ ধরনের অদ্ভুত প্রশ্নের উদ্দেশ্য হলো  শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানের প্রতি আকৃষ্ট করা এবং বিজ্ঞানের কঠিন বিষয়গুলোকে তাদের কাছে সহজ এবং আকর্ষণীয়  ভাবে উপস্থাপন করা । 

eiffel-tower

আইফেল টাওয়ার ( Eiffel Tower )

ফ্রান্সের প্যারিস শহরের সেইন নদীর তীরবর্তী এলাকায় অবস্থিত আইফেল টাওয়ার ।ফরাসী বিপ্লব স্বরণীয় করে রাখতে ১৮৮৯ সালে স্থপতি গুস্তাভ আইফেল আইফেল টাওয়ার নির্মাণ করেন । ৩০০ মিটার উচ্চতার এ বিশাল টাওয়ার টি  মাত্র ৩০০ জন শ্রমিক ২ বছর ২ মাস ২ দিনে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেন।

আরো পড়তে পারো

১৯৯১ সালে আইফেল টাওয়ার বিশ্বের সবচেয়ে ঐতিহ্যপূর্ণ শীর্ষ স্থাপনা হিসেবে ইউনেস্কো কর্তৃক আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করে। আইফেল টাওয়ারের আরেক নাম “ট্যুর আইফেল”।১৯৩০ সালে আমেরিকার নিউইয়র্ক শহরে ক্রাইসলার ভবনটি নির্মিত হওয়ার আগ পর্যন্ত দীর্ঘ ৪০ বছর যাবৎ আইফেল টাওয়ারই ছিল পৃথিবীর একমাত্র সুউচ্চ পরিকাঠামো। 

Eiffel Tower
রাতের আইফেল টাওয়ার

প্যারিস জার্মানির অধীনস্থ থাকাকালীন ১৯৪০ খ্রিস্টাব্দে ফরাসিরা টাওয়ারের লিফটের তার কেটে ফেলে। ফলস্বরূপ এডলফ হিটলারকে পদব্রজে চূড়ায় উঠতে হয়েছিল। তখন এমনটি বলাবলি হতো যে হিটলার ফ্রান্স বিজয় করলেও আইফেল টাওয়ার বিজয় করতে পারেন নি।

আপনি জানেন কি যেটির কারণে  আজ গোটা বিশ্ব থেকে ফ্রান্সে পর্যটক আসে এবং যা ফ্রান্সের অর্থনীতিতে বিশাল অবদান রাখছে সেই টাওয়ার চালু হওয়ার পর শহরের মানুষ বিরক্ত হয়ে বলেছিল , প্যারিসের সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে গেল। বিশিষ্টজনরা গর্জে উঠে বলেছিল, এ যেন এক দৈত্য যা শহরের লজ্জা। 

এমনকি কমিটি গড়ে রীতিমত আইফেল টাওয়ার হটাও আন্দোলন শুরু হয়ে গিয়েছিল। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ফরাসি সেনাবাহিনী নাৎসিদের অপব্যবহার রুখতে টাওয়ারের অংশবিশেষ ভেঙে ফেলার কথা ভেবেছিল, তারপর হিটলার স্বয়ং আইফেল টাওয়ার ধ্বংস করার নির্দেশ দিয়েছিলেন, যদিও তা অমান্য করা হয়েছিল।

আরো পড়তে পারো

eiffel-tower
রাতের প্যারিস

আইফেল টাওয়ার প্রতি বছর ১৫ সে.মি বৃদ্ধি পায় কেন ?

আমরা এর আগে ঠান্ডায় কোন কিছু জমে যায় কেন ? আর্টিকেলে বলেছি যে,  যে কোন পদার্থের মধ্যে দুই রকমের শক্তি বিদ্যমান একটি হলো পদার্থে অবস্থিত কণাগুলোর মধ্যে বিদ্যমান আকর্ষণ শক্তি যাকে বলে আন্তঃকণা আকর্ষণ শক্তি  এবং অন্যটি হলো কণাগুলোর গতি শক্তি । 

তাপ প্রয়োগে পদার্থের কণাগুলোর গতি শক্তি বৃদ্ধি পায় । এই কারণে কণাগুলো একে অপরের কাছ থেকে দূরে সরে যায় । ফলে পদার্থের আয়তন বৃদ্ধি পায় । এ জন্য বলা হয়ে থাকে তাপ প্রয়োগে পদার্থের আয়তন বৃদ্ধি বাড়ে। 

তাপ প্রয়োগে পদার্থের আয়তন বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য প্রতি বছর গ্রীষ্মকালে আইফেল টাওয়ারের দৈর্ঘ্য ১৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পায় । তবে শীত কালে আবার তাপ অপসারণের কারণে অর্থ্যাৎ ঠান্ডায় এটির আয়তন হ্রাস পায় বা পূর্বের অবস্থায় ফিরে যায় । শুধু তাই নয় প্রতি বছর শীতকালে এটি ৪.৮ ইঞ্চি কমে যায় ।

এই একই কারণে রেল লাইনের লোহার সংযোগ স্থলে ফাঁকা রাখা হয় । কারণ রেলগাড়ি চলার সময় গাড়ির চাকার সাথে রেল লাইনের প্রচন্ড ঘর্ষণের ফলে তাপের সৃষ্টি হয় এবং এতে রেল লাইনের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি পায় । তাই কিছু ব্যাবধানে লাইনের মাঝে কিছুটা ফাঁক  রাখা হয় । মাঝখানে ফাঁক না রাখলে রেলগাড়ি চলার সময় উৎপন্ন তাপের কারণে লাইন সামনের দিকে বেড়ে গিয়ে বাঁকা হয়ে মারাত্বক দূর্ঘটনা ঘটতে পারে । 

আশা করি ভালো লেগেছে । পোস্টটি বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে তাদেরকেও জানার সুযোগ করে দিও । ভালো থাকো সুস্থ থাকো অন্বেষা.নেট এর সাথে থাকো ।

আরো পড়তে পারো

এসএসসি বীজগণিত অংক সৃজনশীল : অধ্যায় ৩.১ - ৩.৪

 উপপাদ্য সৃজনশীল : ব্যবহারিক জ্যামিতি 

তাহলে কি আমাদের ঘুমের প্রয়োজন নেই

জুয়েল

দেওয়ার মতো কোনো পরিচয় নেই। অনার্স শেষ করে আপাতত বাংলাদেশ বেকার কোম্পানির ম্যানেজার হিসেবে মশা-মাছি তাড়াচ্ছি। তবে স্বপ্ন আছে অন্বেষা.নেট - কে শ্রেষ্ঠ শিক্ষা বিষয়ক বাংলা ব্লগে পরিণত করা এবং শিক্ষার্থীদের মেধাকে বাজারের নিম্নমানের নোট গাইড থেকে রক্ষা করা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন